About Herbal King

Herbal King has wishes to serve you as a good herbal consultant.

আয়ুর্বেদ চিকিৎসা

‘আয়ু’ শব্দের অর্থ ‘জীবন’ এবং ‘র্বেদ’ শব্দের অর্থ ‘জ্ঞান বা বিদ্যা’।’আয়ুর্বেদ’ শব্দের অর্থ ‘জীবনজ্ঞান বা জীববিদ্যা’. অর্থাৎ‍ যে জ্ঞানের মাধ্যমে জীবের কল্যাণ সাধন হয় তাকে আয়ুর্বেদ বা জীববিদ্যা বলা হয়। আয়ুর্বেদ চিকিৎসা বলতে ভেষজ বা উদ্ভিদের মাধ্যমে যে চিকিৎ‍সা দেয়া হয় তাকে বুঝানো হয়। এই চিকিৎ‍সা ৫০০০ বছরের পুরাতন। আদি যুগে গাছপালার মাধ্যমেই মানুষের রোগের চিকিৎসা করা হতো। এই চিকিৎসা বর্তমানে ‘হারবাল চিকিৎসা’ তথা ‘অলটারনেটিভ ট্রিটমেন্ট’ নামে পরিচিতি লাভ করেছে। বর্তমানে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তানে এই চিকিৎসা বেশী প্রচলিত। পাশাপাশি উন্নত বিশ্বেও এই চিকিৎসা ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। কারন মর্ডান এলোপ্যাথি অনেক ঔষধেরই SIDE EFFECT বা পার্শ প্রতিক্রিয়া রয়েছে। যেমনঃ Antibiotic ঔষধ সিপ্রোফ্লক্রাসিন, ফ্লুক্লক্রাসিলিন, মেট্রোনিডাজল, ক্লক্রাসিলিন প্রভৃতি ঔষধ রোগ সারানোর পাশাপাশি মানব শরীরকে দুবর্ল করে ফেলে এবং দীর্ঘদিন ব্যবহারের ফলে স্মৃতিশক্তি, যৌনশক্তি, কর্মক্ষমতা কমে যাওয়ার ইতিহাস পাওয়া যায়।
আদিযুগে গাছপালার মাধ্যমেই মানুষের রোগের চিকিৎসা করা হতো। এই চিকিৎসা বর্তমানে ‘হারবাল চিকিত্‍সা’ তথা ‘অলটারনেটিভ ট্রিটমেন্ট’ নামে পরিচিতি লাভ করেছে। নিম্নে পাঠক-পাঠিকার উপকারার্থে কতিপয় SINGLE বা একক হারবাল ঔষধের গুনাগুন তুলে ধরা হলো। আশাকরি সবাই এথেকে উপকৃত হবেন।এরপরেও উপকার না পেলে অর্থাৎ রোগের তীব্রতায় কোন রেজিষ্টার্ড হারবাল চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে পারেন।

গাছপালার গুনাগুন তথা কতিপয় হারবাল চিকিৎসা:
যারা বেশীক্ষণ অজু রাখতে পারেন না: তাদের জন্য জীরাভাঁঙ্গাচূর্ণ ১ চা-চামচমাত্রায় ২ বেলা আহারের পর সেব্য। এতে বদহজমেও উপকার পাবেন।
Continue reading “আয়ুর্বেদ চিকিৎসা” »

Burning sensation in urethra after ejaculation..!

Sometimes my patient asked me that they feel pain after having sex with his partner. Sometimes after having ejaculate, he may feel uncomfortable burning sensation in his urethra that last one or two minutes and then goes away. May be you do feel the same sometimes after having sex or masturbate. The common fact is if you have ejaculation you feel burning and get pressure to pee. If it happens then a question comes in your mind that weather it is problem or not. Then you have such a condition that you don’t sure about that. Someone goes to local doctor and don’t get any suitable answer also.
Today, our discussion matter is why that burning is happens any how to reduce or remove that pain after having sex.
Many times when a man is tugging a bit too hard, you will have the sensation to urinate that won’t go away. This urination is a natural reflex of the body to clean out your canals per say. The constant feeling of urination is the body’s natural reaction to the harsh conditions your penis just faced. The burning is from the lubrication getting into the head.
burn ejaculation
If STD(sexually transmitted disease)s are not the problem, it could be a urinary tract infection. UTIs happen when you try to “hold it” for a too long or foreign bacterium gets introduced into the urethra. Symptoms include burning when trying to urinate; itchiness, cloudy and foul smelling urine, and feeling like you have to go but only a little coming out.
It’s not at all unusual to have a burning sensation with urination immediately or shortly after ejaculation – especially if you ejaculated more than once. It usually just means that the urethra is irritated by the force of those ejaculations. It also leads to the desire to urinate.
Continue reading “Burning sensation in urethra after ejaculation..!” »

গ্যাস্ট্রিক

গ্যাস্ট্রিক বা এসিডিটির সমস্যা আমাদের দেশে খুবই স্বাভাবিক ব্যপার। অনেককে বছরের প্রায় সময়ই ভুগতে হয় এ সমস্যায়। গ্যাস্ট্রিক এর বাথ্যা হয় নাই এমন লোক পাওয়া যাবেনা। বুক জ্বলা, পেটের মাঝখানে চিনচিনে ব্যথা, পেট ফাঁপা ও ভার বোধ হওয়া, বুক-পেটে চাপ অনুভূত হওয়া—এসব হয়নি এমন মানুষ পাওয়া ভার। প্রচলিত কথায় একে বলে পেটে গ্যাস হয়েছে। পাকস্থলী থেকে খাদ্য হজম করার জন্য নির্গত হয় শক্তিশালী হাইড্রোক্লেরিক অ্যাসিড। যা পাকস্থলীকেই যেন হজম করে না ফেলে, সেজন্য এটির দেয়ালে থাকে প্রতিরোধী আবরণ। কোনো কারণে এই প্রতিরোধশক্তিতে ফাটল দেখা দিলে বা অতিরিক্ত অ্যাসিড নিঃসৃত হতে থাকলে পুরো ভারসাম্য নষ্ট হয়ে যায়। একেই বলে গ্যাস্ট্রিক । তবে গ্যাস্ট্রিক এর শেষ অবস্থা হলে তাকে আলসার ও বলে। গ্যাস্ট্রিক নিয়ে অনেকেই অনেক কিছু করেন বা বলেন।

indexকিছু সাধারণ নিয়মকানুন পালন করলে এই গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা অনেকটাই কমানো যায় :
১. নির্দিষ্ট সময়ে খাদ্য গ্রহণ করুন। পাকস্থলী নির্ধারিত সময়ে অ্যাসিড তৈরি হয়। এ সময় পেটে খাবার না পেলে সে নিজের দেয়ালেরই ক্ষতি করতে শুরু করে।
২. একবারে অতিরিক্ত পরিমাণ খাবার না খেয়ে সারা দিনের খাবারটাকে বেশ কয়েক ভাগে ভাগ করে নিন। অনেকক্ষণ একটানা না খেয়ে থাকবেন না। মূল খাদ্য যেমন প্রাতরাশ, মধ্যাহ্নভোজ বা নৈশভোজ কখনো একবারে বাদ দেবেন না। অনেকেই প্রাতরাশ না খেয়েই বাইরে চলে যান, অনেকে আবার খাদ্যনিয়ন্ত্রণের নামে নৈশভোজ না করেই শুয়ে পড়েন, এগুলো মোটেই ভালো অভ্যাস নয়।
৩. ঘুমানোর কমপক্ষে দুই ঘণ্টা আগে রাতের খাবার সেরে নিন। খাবার পর বসে পত্রিকা বা বই পড়ুন, অথবা টেলিভিশন দেখুন।
৪. ঘুমানোর সময় লক্ষ্য রাখুন, মাথা শরীরের চেয়ে ৬ থেকে ৮ ইঞ্চি ওপরে আছে কি না। অনেক সময় শোবার সমস্যার কারণে পাকস্থলীর খাবারসহ অ্যাসিড ওপরের দিকে ঠেলে আসে।
Continue reading “গ্যাস্ট্রিক” »

তেঁতুল

তেঁতুল : ভেষজবিদদের মতে, রোগ প্রতিকারে অনেক পদ্ধতিতে তেঁতুলের ব্যবহার করা যায়। রক্তে কোলেস্টেরল কমানোর কাজে বর্তমানে তেঁতুলের আধুনিক ব্যবহার হচ্ছে। নিয়মিত তেঁতুল খেলে শরীরে সহজে মেদ জমতে পারে না। তেঁতুলে টারটারিক এ্যাসিড থাকার ফলে খাবার হজমেও এটি দারম্নণ সহায়ক। পেটের বায়ু ও হাত-পা জ্বালায় তেঁতুলের শরবত খুবই উপকারী।
tetul1
পেটের গ্যাস, মাথাব্যথা, ধুতরা অথবা কচুর বিষাক্ততা থেকে রা পেতে তেঁতুল ফলের শাঁসের শরবত খেলে শতভাগ সুফল পাওয়া যায়। এভাবে নিয়মিত খেলে প্যারালাইসিস আক্রানত্ম অঙ্গের অনুভূতি ফিরে আসে। এসব উপকার পেতে সরাসরি না খেয়ে পুরনো তেঁতুলের ৩/৪টি দানা এক কাপ পানির সঙ্গে মিশিয়ে লবণ অথবা চিনি দ্বারা খাওয়া অত্যধিক নিরাপদ। তেঁতুল গাছের ছালের চূর্ণ ব্যবহার করে হাঁপানি, চোখ জ্বালাপোড়া ও দাঁত ব্যথা থেকে মুক্ত থাকা যায়। তেঁতুল পাতা সিদ্ধ করে ছেঁকে সেই পানি জিরার ফোড়ন দিয়ে খেলে আমাশয় রোগ ভাল হয়। এভাবে ২/৩ দিন খেলে পেটে জমে থাকা মিউকাস বেরিয়ে আসে। মুখের ভিতরের ত সারাতে তেঁতুল পাতার সিদ্ধ পানি মুখে নিয়ে ২/৩ দিন ৪/৫ মিনিট করে রেখে কুলকুচি করা যায়। একই পানি দ্বারা শরীরের যে কোন নতুন ও পুরনো তস্থান ধুয়ে দিলে সেসব ত দ্রম্নত শুকিয়ে যায়। তেঁতুলের এত ঔষধি গুণ ছাড়াও যাবতীয় মুখরোচক খাবার তৈরিতেও এর ব্যবহারের কোন জুড়ি নেই।

premature ejaculation

While people often laugh about it, living with premature ejaculation (PE) is no joke.

We recognize the very real problems PE can cause for both men and their partners, and how important the internet can be as a source of information for sensitive subjects like this one. However, developments in PE research are happening all the time, and not all websites carry up-to-date, accurate information you can trust. That’s why we’ve developed this website; to help give you a source of balanced, easily understood information on this common condition. We also know that it can be tempting to go online and buy the treatments for PE you see advertised on the internet or in the media. While this may seem like a good idea, the reality is that buying medical treatments online exposes you to the risk of being mis-sold expensive, ineffective and potentially dangerous imitation treatments whose safety and efficacy you cannot be sure of. The fact is that the internet is only a starting point and it is your doctor that is the best place to get information on PE and access to safe and effective treatment that best suits your needs.
Continue reading “premature ejaculation” »